রবিবার, ১৭ই নভেম্বর ২০১৯ ইং, ২রা অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |আর্কাইভ|
header-ads
চলে গেলেন নির্মাতা সাইদুল আনাম টুটুল
ডিসেম্বর ১৮, ২০১৮
চলে গেলেন নির্মাতা সাইদুল আনাম টুটুল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

না ফেরার দেশে চলে গেলেন অভিনয়শিল্পী এবং ছোট ও বড় পর্দার বরেণ্য নির্মাতা ও চিত্র সম্পাদক সাইদুল আনাম টুটুল । আজ মঙ্গলবার বেলা ৩টা ১০ মিনিটে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে তিনি শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। এ সময় পাশে ছিলেন তাঁর স্ত্রী মোবাশ্বেরা খানম। তিনি স্ত্রী ও দুই মেয়ে রেখে গেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়ষ ছিল ৬৮ বছর।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তাঁর দুই মেয়ে ঐশী আনাম ও অমৃতা আনাম এখন যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী। গতকাল সোমবার বড় মেয়ে ঐশী আনাম দেশে ফিরেছেন। আগামীকাল বুধবার ছোট মেয়ে অমৃতা আনাম দেশে ফেরার পর সাইদুল আনাম টুটুলকে দাফন করা হবে।

টগত শনিবার রাতে তিনি হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হন। এরপর তাঁকে ল্যাবএইড হাসপাতালে আনা হয়। চিকিৎসক তাঁকে দ্রুত হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি করেন। এরপর তাঁকে লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয়।

সাইদুল আনাম টুটুল মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে তিনি ৬ নম্বর সেক্টরে যুদ্ধ করেছেন। তাই পরিবারের ইচ্ছা, তাঁকে যেন মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হয়।

প্রসঙ্গত, সাইদুল আনাম টুটুল চলচ্চিত্র সম্পাদক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। ১৯৭৯ সালে শেখ নিয়ামত আলী পরিচালিত ‘সূর্য দীঘল বাড়ী’ চলচ্চিত্রের সম্পাদনার জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। এছাড়াও সালাউদ্দিন জাকির ঘুড্ডি, শেখ নিয়ামত আলীর দহন, মোরশেদুল ইসলামের দীপু নাম্বার টু ও দুখাই ছায়াছবির সম্পাদনাও তিনি করেন।

এক সময়ে নিজেই পরিচালনায় নাম লেখান। তার পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র ‘আধিয়ার’ ২০০৩ সালে মুক্তি পায়। ১৯৪৬-৪৭ সালের বাংলার কৃষক চাষীদের তেভাগা আন্দোলনকে কেন্দ্র করে নির্মিত চলচ্চিত্রটি সমালোচকদের ব্যাপক প্রশংসা অর্জন করে।

এরপর তিনি নাটক নির্মাণে মন দেন। ২০০৯ সালে তার নির্মিত তিনটি নাটক বখাটে, আপন পর ও নিশিকাব্য জনপ্রিয়তা লাভ করে। সাইকেল চালিয়ে জীবিকা অর্জন করে এমন একটি পরিবারের গল্প নিয়ে ২০১১ সালে নির্মাণ করেন খণ্ড নাটক ‘হেলিকপ্টার’। এতে সাইকেল চালকের ভুমিকায় অভিনয় করেন আজিজুল হাকিম।

এরপর তার নির্মিত ‘৫২ গলির এক গলি’, ‘দায় মার সন্তানেরা’, ‘অপরাজিতা’, ‘মৃতের প্রত্যাবর্তন’, ‘শিউলিমালা’, ‘কুটে কাহার’, ‘গোবরা চোর’ নাটকগুলো বেশ দর্শকপ্রিয়তা পায়।

২০১৪ সাল থেকে তিনি এটিএনবাংলা ও ব্যাকড্রপ লিমিটেডের যৌথ আয়োজনে নির্মিত এটিএনবাংলায় প্রচারিত টেলিভিশন নাটক বিষয়ক রিয়েলিটি শো ‘রয়েলে টাইগার নাট্যযুদ্ধ’র বিচারকের দ্বায়িত্ব পালন করছিলেন তিনি।

সর্বশেষ তিনি ২০১৭-১৮ অর্থবছরে সরকারি অনুদানে  তার দ্বিতীয় সিনেমা ‘কালবেলা’র কাজ শুরু করেছিলেন। এর মাধ্যমে দীর্ঘ ১৫ বছর পর চলচ্চিত্রের পরিচালনায় ফিরেছিলেন এই নির্মাতা। কিন্তু, শেষ ছবির কাজ শেষ না করেই স্মৃতি হয়ে গেলেন সাইদুল আনাম টুটুল।

 

 

Print Friendly, PDF & Email