রবিবার, ১৭ই নভেম্বর ২০১৯ ইং, ২রা অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |আর্কাইভ|
header-ads
জাবিতে আন্দোলনকারীদের হয়রানির অভিযোগ
নভেম্বর ১, ২০১৯
জাবিতে আন্দোলনকারীদের হয়রানির অভিযোগ

জাবি সংবাদদাতা:
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) অধিকতর উন্নয়ন প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলামের অপসারণ দাবিতে আন্দোলন চলছে গত ২ অক্টোবর থেকে।

গতকাল শুক্রবার পঞ্চম দিনের মতো সর্বাত্মক ধর্মঘট কর্মসূচি পালন করেছে ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে আন্দোলনরত শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। ধর্মঘটের ফলে বিশ^বিদ্যালয়ের সকল বিভাগের উইকেন্ড কোর্সের ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ ছিলো।

এদিকে আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের পুলিশ এবং গোয়েন্দা সংস্থার মাধ্যমে হয়রানি করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আন্দোলনকারীরা। বিকাল ৪ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন প্রশাসনিক ভবনের সামনে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব কথা জানান তারা। সংবাদ সম্মেলনে আন্দোলনকারী শিক্ষক পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক জামাল উদ্দীন রুনু বলেন, ‘আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী খান মুনতাসির আরমানের গ্রামের বাড়িতে পুলিশ পাঠানো হয়েছে, প্রো-ভিসি অধ্যাপক আমির হোসেন এবং সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ দিদারের মোবাইল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এরূপ আচরণে আমরা আতঙ্কিত বোধ করছি। তবে ভয়ভীতি দেখিয়ে আন্দোলন দমন করা যাবেনা।

সংবাদ সম্মেলন থেকে আরও বলা হয়, উপাচার্যের অপসারণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলতে থাকবে। তবে এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আ. স. ম. ফিরোজ উল হাসান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে এ ধরনের কোনো কাজ করা হয়নি। মোবইল সংযোগ কেন বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে তা বিটিআরসি বলতে পারবে। আমরা বিটিআরসি চালাই না।

Print Friendly, PDF & Email