শনিবার, ১৬ই নভেম্বর ২০১৯ ইং, ১লা অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |আর্কাইভ|
header-ads
মনুষ্যত্ব ।
জানুয়ারি ২৯, ২০১৯
মনুষ্যত্ব ।
ভালোবাসার পরশে মানুষ অজানাকে জানে, পারে কিছু জানাকে অজানায় প্রকাশ করতে।  আর যদি সেটা একটু ভিন্ন বা স্বার্থ লুপানোর জন্য হয়ে থাকে; ঠিক তখন সে যদি বুঝতে পারে যে তার সাথে যেটা করেছিলো সেটা ছলনামাত্র।  পরক্ষণে সে মানুষকে র্নিস্তব্ধতা, আনমনা, একাকীত্ব করে তোলে।  যেন এটা আরেকটি ভিন্ন জগৎ।  মনে হয় যেন পৃথিবীর সবকিছু সৃষ্টি একদিকে আর আমি একদিকে।
কিন্তু  জীবনের  সাথে এমনটি কি এক বারেই হয়?  আর এমন অভ্যাস হওয়াটাও কি ঠিক?না, ধীরে ধীরে একজন মানুষ তার মনের গহীনে লুকিয়ে থাকা যে অনুভূতি বা প্রতিভা যেটাই বলিনা কেন, যখন সেটা বাহিরে প্রকাশ করতে চাইলেও বাস্তবিক অর্থে  তা সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে তার মনের চাওয়াটা বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে ব্যর্থ হয় এবং পরিবেশের সাথে নিজেকে সমন্বয় করে সুপ্ত প্রতিভা বিকশিত করতে পারে না।
তখনই শুরু হয় তার ভিতরের গুরুগম্ভীর্যতা। এমন ধরনের মানুষের সংখ্যাও দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।  আর এর পিছোনে আমরা প্রত্যকে কোন না কোন ভাবে কি দায়ী নয় তা বলা দুস্কর। আমি মনে করি অবশ্যই আমরা দায়ী।  কারণ, আমরা আজ আমাদের ভিতরকে গড়ে তুলছি ময়লার পাহাড় ও স্বার্থের ঝাড়। মনুষ্যত্বটা আজ আমরা গলা টিপে হত্যা করতে চলেছি।
আমরা কি আসলে মানুষ? না, আমারা বাহির থেকে মানুষরূপে যেটা দেখি সেটা একটি কাঠামোমাত্র কিন্তু  আসল মানুষটা হলো ভিতরের আর সেই মানুষটাই যদি বোঝে মনুষ্যত্ব কি? তবে, সেখান থেকে সৃষ্টি হবে সৃষ্টির প্রতি ভালোবাসা,
স্নেহ, মায়া, মমতা।  যখনই মানুষ একে অপরের প্রতি নিঃস্বার্থ  ভালোবাসা নিজের মধ্যে জন্মাতে পারবে, তখন মিলবে মানবের জাগ্রত বিবেক।
আমরা যে পরিচয়ে পরিচিত সেই মানুষ তার ধর্ম, বর্ণ, জাতি,ধনী-গরীব, উচু-নিচু সকল মতভেদ ভুলে শুধু মাত্র মানুষ পরিচয় নিয়ে সমাজে মানুষের সাথে আত্নার বাঁধন তৈরি করতে পারি। তবে, মানুষের মনুষ্যত্ব বিকাশ লাভ করে নিজেকে প্রশান্তি লাভের মাধ্যমে তাকে অগ্রগতি পথে ধাবমান করতে পারবে। মনের সাহস আর শক্তিতে তখন সবকিছু মনে হয় যেন জয় জয়কার।
আর তাই আমাদের উচিৎ ভালোবাসাটা কে বর্তমান প্রচালিত ভালোবাসার মত না করে মনের গহীন থেকে নিজের ভিতরের মানুষটা কে মানুষের কাছে পৌঁছিয়ে দেওয়া এবং মনুষ্যত্বের মত মহাৎ কাজের মাধ্যমে মানুষ কে ভালো রাখা বা ভালো মানুষ গড়া।
তারিক সাইমুম
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়,কুষ্টিয়া
Print Friendly, PDF & Email