রবিবার, ১৭ই নভেম্বর ২০১৯ ইং, ২রা অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |আর্কাইভ|
header-ads
রুটির নানা রকম রেসিপি
এপ্রিল ২৩, ২০১৯
রুটির নানা রকম রেসিপি

হালুয়ার স্বাদ যেন বাড়িয়ে দেয় রুটি। বিভিন্ন দিবসে  হালুয়ার পাশাপাশি বানানো হয় নানা ধরনের রুটিও। হালুয়া দিয়ে খাওয়ার বাইরেও নিজস্ব স্বাদ পাওয়া যাবে, এমন রুটিও অনেকে  বানাতে পছন্দ করেন । ঐতিহ্যবাহী বা আধুনিক, দেশি বা বিদেশি যেকোনো ঢঙেই ভালো লাগে রুটির স্বাদ। রুটির নানা আয়োজন নিয়ে রেসিপি দিয়েছেন আফরোজা নাজনীন।

রুটির তৈরি রেসিপি

ছবিঃ সরকারপুরভরা বান

বানের উপকরণ
দেড় কাপ ময়দা , ১ টেবিল চামচ চিনি , আধা কাপ দুধ,  আধা চা-চামচ ইস্ট,  ডিম অর্ধেকটা, লবণ আধা চা-চামচ, তেল ১ টেবিল চামচ, পানি পরিমাণমতো।

পুরের উপকরণ
মুরগির কিমা আধা কাপ, গাজরকাটা ১ টেবিল চামচ, পালংশাকের কুচি ১ টেবিল চামচ, আদাবাটা ১ চা-চামচ, রসুনকুচি আধা চা-চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, মোজারেলা চিজ ১ কাপ, ক্রিম চিজ ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচের কুচি ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, তেল পরিমাণমতো।

প্রণালি
পুরের জন্য প্রথমেই একটি কড়াইয়ে গরম তেলে রসুনকুচি ভেজে মুরগির কিমা, লবণ দিয়ে নেড়ে পালংশাক, গাজর, লবণ, আদাবাটা, গোলমরিচের গুঁড়া, কাঁচা মরিচের কুচি দিয়ে দিন। নেড়ে পানি শুকিয়ে সব সেদ্ধ হলে মোজারেলা চিজ ও ক্রিম চিজ দিয়ে নামিয়ে নিন। বানের সব উপকরণ অল্প অল্প করে পানি দিয়ে ভালোভাবে মেখে নিন। তারপর ঢেকে রাখুন। ফুলে দ্বিগুণ হলে এর থেকে খানিকটা করে নিয়ে পাতার আকারে করে বান বানাতে হবে। ওপরে ডিম ব্রাশ দিয়ে মেখে দিন। কিছুক্ষণ রেখে দিতে হবে। তারপর ১৮০ ডিগ্রিতে ১০-১২ মিনিট বেক করে একটু ঠান্ডা হলে মাঝবরাবর কেটে রান্না করা পুর ভরে পরিবেশন করুন।

রুটি রেসিপি

ছবিঃ সরকারক্রসাঁ

ক্রসাঁর উপকরণ: ময়দা ৩ কাপ, চিনি ২ টেবিল চামচ, দুধ আধা কাপ, ইস্ট ১ চা-চামচ, ডিম ১টা, লবণ ১ চা-চামচ, তেল ২ টেবিল চামচ, পানি পরিমাণমতো।

পুরের উপকরণ: স্ট্রবেরি জেলি ২ টেবিল চামচ, সাজানোর জন্য ডার্ক চকলেট পরিমাণমতো।

প্রণালি
ক্রসাঁর সব উপকরণ অল্প অল্প করে পানি দিয়ে ভালোভাবে মেখে নিন। তারপর ঢেকে রাখুন। ফুলে দ্বিগুণ হলে এর থেকে খানিকটা নিয়ে লেচি করে রুটির মতো বেলে নিন। তিন কোনা করে কেটে নিয়ে এর চওড়া দিকে স্ট্রবেরি জেলির পুর ভরে দুই মাথা বাঁকা করে ক্রসাঁর আকার দিয়ে ডিমের প্রলেপ (এগ ওয়াশ) দিয়ে আবার কিছুক্ষণ রেখে দিন। তারপর ১৮০ ডিগ্রিতে ১৫ মিনিট বেক করে নিন। ঠান্ডা হলে ক্রসাঁগুলো গলানো ডার্ক চকলেট গড়িয়ে পরিবেশন করুন।

রুটি তৈ্রি

ছবিঃ সরকারপকেট শর্মা

শর্মার উপকরণ
পিটা ব্রেড ১টা।

কাবলি ছোলার উপকরণ
সেদ্ধ কাবলি ছোলা ১ কাপ, পেঁয়াজকুচি ২ টেবিল চামচ, টমেটোকুচি ১ টেবিল চামচ, শসাকুচি ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচের কুচি ১ চা-চামচ, পাপড়িকা আধা চা-চামচ, মরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ, জিরাগুঁড়া ১ চা-চামচ, চাট মসলা ১ চা-চামচ, বিট লবণ ১ চা-চামচ, আদাকুচি আধা চা-চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ, পুদিনাপাতার কুচি ১ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, জলপাই তেল আধা চা-চামচ, ঝাল সস তিন ভাগের দুই টেবিল চামচ।

প্রণালি
শর্মার পুরের জন্য প্রথমে একটি পাত্রে কাবলি ছোলার সব উপকরণ ভালো করে মেখে নিন। এখন পকেট শর্মার জন্য পিটা রুটি মাঝবরাবর কেটে দুই টুকরা করে প্রতিটার মাঝখানে পকেট তৈরি করে নিন। কাবলি ছোলার মিশ্রণটা এই রুটির পকেটের মধ্যে ঢুকিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার পকেট শর্মা

 

রুটর রেসিপি

ছবিঃ সরকারক্যাটার পিলার ব্রেড

রুটির উপকরণ: ময়দা ৩ কাপ, চিনি ২ টেবিল চামচ, দুধ আধা কাপ, ইস্ট ১ চা-চামচ, ডিম ১টি, লবণ ১ চা-চামচ, তেল ২ টেবিল চামচ, পানি  পরিমাণমতো।

কিমার উপকরণ: গরুর কিমা ১ কাপ, গরমমসলা পরিমাণমতো, পেঁয়াজকুচি ২ টেবিল চামচ, আদাবাটা আধা চা-চামচ, রসুনবাটা আধা চা-চামচ, কাঁচা মরিচের কুচি  আধা চা-চামচ, ভাজা ধনে-জিরাগুঁড়া ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, তেল  পরিমাণম তো ।
প্রণালি: কিমার পুর বানানোর জন্য লবণ ও গরমমসলা দিয়ে কিমা সেদ্ধ করে নিন। গরম তেলে পেঁয়াজকুচি, আদাবাটা, রসুনবাটা ভেজে তাতে ওই সেদ্ধ কিমাটা দিয়ে নেড়ে কাঁচা মরিচের কুচি ও ভাজা ধনে-জিরাগুঁড়া ছড়িয়ে নামিয়ে নিন। রুটি বানানোর সব উপকরণ অল্প অল্প করে পানি দিয়ে ভালোভাবে মেখে নিতে হবে। তারপর ঢেকে রাখুন। ফুলে দ্বিগুণ হলে এর থেকে খানিকটা নিয়ে লেচি করে রুটির মতো বেলে নিতে হবে। এর মধ্যে কিমার পুর ভরে ক্যাটার পিলারের আকারে এনে ডিমের প্রলেপ দিয়ে আবার কিছুক্ষণ রেখে দিতে হবে। তারপর ১৮০ ডিগ্রিতে ১৫-২০ মিনিট বেক করে পরিবেশন করুন।

 

Print Friendly, PDF & Email